শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৩০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
প্রাথমিক থেকে কলেজ পর্যন্ত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাত দিনের ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। আজ ফেসবুকে ঘোষণা দিয়ে যা বললেন ড. বেনজীর আহমেদ প্রাণিসম্পদে ভরবো দেশ, গড়বো স্মার্ট বাংলাদেশ”  প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী ২০২৪ উদ্বোধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। লোহাগড়ার লাহুড়িয়া পুলিশের অভিযানে ১২ কেজি গাঁজা ও ১টি প্রাইভেটকারসহ ২ মাদক কারবারি গ্রেফতার। ঈদগাঁও ইউনিয়ন নির্বাচন: ৩ প্রার্থীর মধ্যে মাঠ পর্যায়ে কে এগিয়ে!  সুন্দরবনের ফাঁদ সহ হরিণ শিকারী আটক করেছে বন বিভাগ মধুখালীতে প্রাণীসম্পদ প্রদর্শনী মেলা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত মধুখালীতে মুজিবনগর দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা  গলাচিপায় ঐতিহাসিক মুজিবনগর দিবস পালিত বাঁশখালীতে জমির বিরুধ নিয়ে সংঘর্ষ উভয় পাক্ষের আহত ১০

দীঘিনালায় মডেল মসজিদ নির্মাণ কাজে অনিয়ম

নুর নবী হোসেন রনি  দীঘিনালা (খাগড়াছড়ি )প্রতিনিধি
  • আপলোডের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৫ জুন, ২০২৩

খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলায় মডেল মসজিদ নির্মাণ কাজে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। কাজের সিডিউলকে তোয়াক্কা না করে নিয়ম বহির্ভূতভাবে নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে নির্মাণ কাজ করা হচ্ছে। খোদ উপজেলা পরিষদ চত্বরে এমন অনিয়মের ঘটনা ঘটলেও স্থানীয় প্রশাসনের যেন নেই কোনো দায়। আর এর মাধ্যমে মসজিদ ভবনের স্থায়িত্ব ও মান নিয়ে সংশয় দেখা দিয়েছে। এছাড়াও কাজ শুরুর পূর্বে বিল উত্তোলনেরও অভিযোগ রয়েছে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারের বিরুদ্ধে।

খাগড়াছড়ি গণপূর্ত অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, ‘প্রতিটি জেলা, উপজেলায় একটি করে ৫৬০টি মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্র স্থাপন’ প্রকল্পের আওতায় খাগড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলায় তিনতলা মডেল মসজিদ নির্মাণের জন্য প্রায় ১১ কোটির অধিক টাকা প্রকল্প হাতে নেয়া হয়।
নির্মাণকাজে দ্বায়িত্ব থাকা ম্যানেজার সুজিত নন্দী বলেন, কাজটি এস অনন্ত বিকাশ ত্রিপুরার থেকে ক্রয় করে গৌরী এন্টারপ্রাইজ নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান কাজ করছেন। কয়েকমাস থেকে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানটি নির্মাণ কাজ শুরু করে। পরিষদ সংলগ্ন দীঘিনালা মডেল মসজিদের নির্মাণাধীন কাজের স্থানে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, জং ধরা রডের ব্যবহার ও বেইজের সিসি ঢালাইয়ে সিলেকশন বালুর পরিবর্তে লোকাল বালু ব্যবহার করা হচ্ছে। ঘটনাস্থলে সংশ্লিষ্ট ঠিকাদার সহ গণপূর্ত বিভাগের কোন প্রকৌশলীকে উপস্থিত পাওয়া যায়নি। এ সময় নির্মাণকাজের মিস্ত্রি মনির হোসেন বলেন, “দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত প্রকৌশলী ২ ঘন্টা আগেই চলে গেছে।”
এ বিষয়ে দ্বায়িত্বপ্রাপ্ত প্রকৌশলী সুমিত মজুমদারের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, আমার অনুপস্থিতিতে নির্মাণকাজ পরিচালনা করার সুযোগ নেই। আমি এখনই সংশ্লিষ্ট ঠিকাদারকে কাজ বন্ধ করতে বলছি। তাছাড়া কাজের শুরুতেই বিল উত্তোলনের বিষয়ে তিনি কিছুই জানেননা বলে জানান।

দয়া করে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..