মঙ্গলবার, ৩১ জানুয়ারী ২০২৩, ০৪:১০ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
পঞ্চগড় জেলা পুলিশের বিশেষ অভিযানে  ০৫ জন গ্রেফতার  লোহাগড়ায় প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীকে বিয়ে, নড়াইলে ইভটিজিং এর দায়ে যুবক গ্রেপ্তার, ২ মাসের কারাদণ্ড সাভারে দুইশত বিশ পিচ ইয়াবাসহ দুই জন আটক জেলা প্রশাসকের পরিকল্পনায় স্বপ্ন যাত্রা এ্যাম্বুলেন্স হস্তান্তর এমপি নয়নের। কুষ্টিয়া জেলা পুলিশের জনশৃঙ্খলা ব্যবস্থাপনা কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠিত  পঞ্চগড়ে ২০ জন ছাএ মিলে ১১বিঘা চা গাছ রোপন কুষ্টিয়া পাবলিক স্কুলের আয়োজনে পিঠা উৎসব অনুষ্ঠিত আজ জাতীয় দৈনিক সংগ্রাম প্রতিদিন ই-পেপার – e.SangramPratidin.com লোহাগড়ায় চুনতি ১৯ দিন ব্যাপি সীরাতুন্নবী সঃ মসজিদে বায়তুল্লাহ র উন্নয়ন কাজ শুরু,

লোহাগড়া নলদীর অবৈধ মুরগী,গরুর খামারী,ইউনুচ মোল্যা মানছে না।আপোষ,মীমাংসা ও আইন।

নড়াইল প্রতিনিধিঃ
  • আপলোডের সময় : রবিবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২১

নড়াইল আইন ও আপোষ মানছেন না খামারী উচ্ছেদই একমাত্র প্রতিকার।

বিগত ১৬/১৭ বছর ধরে সুস্পষ্টভাবে পরিবেশ দূষণমুলক নির্যাতন ও উৎপাত করে আসছেন
নড়াইল জেলার লোহাগাড়া উপজেলার নলদী ইউনিয়নের,ব্রহ্মানীনগর গ্রামের নিসার মোল্যার ছেলে মো:ইউনুচ মোল্যা,ক্ষমতার অপব্যবহার করে।অবৈধ ভাবে- মুরগী ও গরুর খামারের

পচা গোবর,গরুর চুনা,মুরগী ফিট ও মরা মুরগী ফেলার কারণে চোখের সামনে মরা মুরগী নিয়ে কুকুরের কামড়াকামড়ি করে ছিড়ে খাওয়া।মুরগির দেহের বিভিন্ন অংশ বিভিন্ন স্থানে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা,বাতাসে দুর্গন্ধয়।অত্যাচারে অতিষ্ঠ৷ গ্রামের
সহজ সরল লোকজন ও পথচারী কোমলমতি শিশুরা।এবং পাশের বাড়ির প্রতিবেশী ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে।প্রয়াত কবি,সাহিত্যেক ও কলম সৈনিক মুক্তিযোদ্ধা কাঙাল শামছুর রহমান এর পরিবার।কারণ তাদের বাড়ির পশ্চিম -দক্ষিণ পাশে তাদের সীমানা ঘেষে চলাফেরার স্থান।তাদের বাড়ীর সামনে খামাটি পরিচালনা করে।

কোন রেজিষ্ট্রেশন,পরিবেশ অধিদপ্তরের ছাড়পত্র নাই,খামার বাবদ এমন কি কোনো কাগজপত্র দেখাতে পারে নাই প্রশাসনকে।এমনকি সামজিক দায়বদ্ধতা থেকে এই অনাচারের বিরুদ্ধে সমাজের বিবেকবান মানুষগুলোও কোন প্রতিবাদ করতে যাওয়ার কারনে বিভিন্ন সময় ভয়-ভীতি ও মিথ্যা মামলা হুমকি দেওয়া হয় প্রতিবেশীদের কে।খামারিদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে।মরহুম কাঙ্গাল শামছুর রহমান এর কন্যা শিল্পী খানম,(শিক্ষানবিশ আইনজীবী ও সাংবাদিক)
বাদী হয়ে অভিযোগ দেয়,জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার সাহেব ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার,লোহাগড়া বরাবর।পুলিশ সুপার বরাবর প্রদও অভিযোগটি লোহাগড়া থানা হয়ে।নলদী পুলিশ ক্যাম্পে আসেন।

তৎকালীন নলদী পুলিশ ক্যাম্প ইনচার্জ মোঃ এনামুল হক সাহেব গত ২৭/৮/২০২১ইং দুই পক্ষকে ডাকেন এবং আপোষ করেন। উল্লেখিত মিটিং এ ক্যাম্প ইনচার্জ জানান যে,যে খামারে মুরগী নাই সেই খামারে আর মুরগী উঠবে না,আর যে খামারে মুরগি আছে সেই খামারের মুরগী অতি দ্রুত পর্যায় ক্রমে সরিয়ে ফেলবে।এবং কিছু গরু হাইজেনিকভাবে পালন করা যাবে,তবে তার গোবরের গর্ত অন্যকে বিরক্ত করার উদ্দেশ্য অন্যর সীমানা ঘেষে হবে না এবং গোবরের গর্ত ডেকে রাখতে হবে।খামারী তাতে একমত হলে উভয় পক্ষ আপোষনামায় স্বাক্ষর করেন।
কিন্তু দুর্ভাগ্যের বিষয় বাস্তবে আপোষ মানছেন না খামারী।তিনি ঠান্ডা মাথায় তার কাজ করে যাচ্ছেন। খামার কার্যক্রম চালিয়ে যাচ্ছেন।যাতে বাতাসে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে। আর সমস্যা হচ্ছে পাশ্ববর্তী মানুষের দুষিত বাতাসে।ক্যাম্পের ইনচার্জ এর কাছে বাদি শিল্পী খানম প্রতিবেদনের একটি ফটোকপি চেয়ে অনুরোধ জানালে তিনি দিতে চেয়ে না দিয়ে,দিচ্ছি দেব করে, তাকে হয়রানি করেন।অবশেষে বাদি শিল্পী খানম পুলিশ সুপার নড়াইল বাবদ ২৬/৯/২০২১ ইং প্রতিবেদনের সত্যায়িত একটি কপি চেয়ে আবেদন করেন এবং ৭/১০/২০২১ইং তারিখে পুলিশ সুপার সাহেবের সাথে দেখা করে প্রতিবেদনের একটি ফটোকপি পাওয়া র অনুমতি পান।এবং ৮/১০/২০২১ইং তারিখে রিজার্ভ খামারে মুরগী এনে রাখার সময় তিনি খামারীদের উদ্দেশ্য করে বলেন যে খামার কার্যক্রম বন্ধ করার কথা,কিন্তু তা না করে প্রতিনিয়ত মুরগী এনেই যাচ্ছে।এবং
কাঙ্গাল শামছুর রহমানের পরিবারকে,মিথ্যা মামলার অভিযোগ করে।

দয়া করে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..