সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১১:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
গোপালগঞ্জে সাংবাদিক পুত্র হত্যার প্রতিবাদে ও বিচারের দাবীতে মানববন্ধন নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় লোহাগড়ায় বাড়ি-ঘর ভাঙচুর, লুটপাট গুরুতর আহত দু’জনকে ঢাকায় প্রেরণ বাগেরহাটের রামপালে পুলিশের পৃথক অভিযানে দুই মাদক কারবারি আটক ফটিকছড়ি সাংবাদিকদের সংগঠন রিপোটার্স ইউনিটির সভা অনুষ্ঠিত। রামপালে পিক-আপের ধাক্কায় চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী নিহত লোহাগড়া বাজারে দুটি মোবাইলের দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি, মোবাইলসহ অর্ধকোটি টাকার মালামাল চুরি  আনার হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার তিন আসামির আট দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত এম পি আনারের দেহাংশ উদ্ধারে কসাই জিহাদকে রিমান্ডের আবেদন  মোংলা থানার ওসির অপসারনের দাবীতে বাগেরহাটে মানববন্ধন চবি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ২৩ তম সভাপতির দায়িত্বে জনাব মুহিউদ্দিন আহমদ।

মানিকগঞ্জে হরিরামপুরের চারতলা স্কুলভবন পদ্মায় বিলীন।

বাবুল আহমেদ মানিকগঞ্জ প্রতিনিধি,
  • আপলোডের সময় : মঙ্গলবার, ২১ জুন, ২০২২

মানিকগঞ্জের হরিরামপুর উপজেলার আজিমনগর ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন চারতলা ভবন পদ্মায় বিলীন হয়ে গেছে। মঙ্গলবার (২১ জুন) উপজেলার চরঞ্চলের এক মাত্র এমপিওভুক্ত স্কুলটি পদ্মা নদীতে বিলীন হয়ে যায়।

স্কুলটির সহকারি শিক্ষক দিলীপ রায় বলেন, চরাঞ্চলের তিনটি ইউনিয়নের একমাত্র এমপিওভুক্ত বিদ্যালয় আজিমনগর ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়। চার শতাধিক শিক্ষার্থী পড়াশোনা করে বিদ্যালয়টিতে। গত এক বছর আগে থেকে বিদ্যালয়টির তিন ও চারতলার কাজ বন্ধ রয়েছে। যদিও ভবনটির চারতলা পর্যন্ত ছাদ দেওয়া ছিল। নদী ভাঙ্গন স্কুলটির কাছাকাছি আসায় কাজ বন্ধ থাকে।

স্কুলের কাছাকাছি হাতিঘাটা এলাকায় পদ্মা ভাঙনে গত এক সপ্তাহ আগে আশ্রয় প্রকল্পের ১০টি ঘরসহ পাঁচটি বাড়িও পদ্মায় বিলীন হয়ে গেছে বলেও জানান তিনি।

আজিমনগর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মো. বিল্লাল হোসেন বলেন, স্কুলটি নদীগর্ভে চলে গেছে। ছাত্র-ছাত্রীদের আর ক্লাস করানো যাবে না। আমরা ঠিক করেছি আপাতত ইউনিয়নের হাটিঘাটা এলাকায় স্কুলের ক্লাস করানো হবে। তবে বসন্তপুর এলাকায় স্থায়ীভাবে স্কুল তোলার চেষ্টা চলছে।

হরিরামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, স্কুল ভবনটি পদ্মায় বিলীন হয়ে গেছে। সেখানে এখন আর ছাত্র-ছাত্রীদের ক্লাস করানো সম্ভব না।

পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মাইন উদ্দিন বলেন, ঐ এলাকায় দু’দিন আগে আমাদের প্রতিনিধি পরিদর্শন করেছেন। স্কুলটি ভাঙন ঝুঁকিতে থাকায় আমরা দেড় বছর আগেই ভবনের নির্মাণ কাজ বন্ধ করতে উপজেলা প্রশাসন ও শিক্ষা প্রকৌশল অধিদফতরকে রিপোর্ট দিয়েছিলাম। স্কুল ভবনের নির্মাণ কাজ বন্ধও ছিল।

দয়া করে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..