সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ০১:৩৯ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
গোপালগঞ্জে সাংবাদিক পুত্র হত্যার প্রতিবাদে ও বিচারের দাবীতে মানববন্ধন নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় লোহাগড়ায় বাড়ি-ঘর ভাঙচুর, লুটপাট গুরুতর আহত দু’জনকে ঢাকায় প্রেরণ বাগেরহাটের রামপালে পুলিশের পৃথক অভিযানে দুই মাদক কারবারি আটক ফটিকছড়ি সাংবাদিকদের সংগঠন রিপোটার্স ইউনিটির সভা অনুষ্ঠিত। রামপালে পিক-আপের ধাক্কায় চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী নিহত লোহাগড়া বাজারে দুটি মোবাইলের দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি, মোবাইলসহ অর্ধকোটি টাকার মালামাল চুরি  আনার হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার তিন আসামির আট দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত এম পি আনারের দেহাংশ উদ্ধারে কসাই জিহাদকে রিমান্ডের আবেদন  মোংলা থানার ওসির অপসারনের দাবীতে বাগেরহাটে মানববন্ধন চবি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ২৩ তম সভাপতির দায়িত্বে জনাব মুহিউদ্দিন আহমদ।

নড়াইলে ২টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী জারজিদ ও সাইফুজ্জামান

শরিফুজ্জামান, নড়াইল প্রতিনিধি :
  • আপলোডের সময় : বুধবার, ২ নভেম্বর, ২০২২

নড়াইলের কালিয়া উপজেলায় দুটি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে পেড়লী ইউনিয়নে জারজিদ মোল্যা এবং পাঁচগ্রাম ইউনিয়নে এস এম সাইফুজ্জামান জয়ী হয়েছেন। বুধবার (২ নভেম্বর) দলীয় প্রতিক ছাড়া এ নির্বাচনে সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়ে বিকাল ৪টায় ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।
কালিয়া উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, পেড়লী ইউপিতে ভোটার সংখ্যা ১৮হাজার ৩’শ ৭৫। এই ইউনিয়নে ১০ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। পেড়লী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক জারজিদ মোল্যা ঘোড়া প্রতীকে ৩৯৮৩ ভোট পেয়ে
বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আনিসুল ইসলাম বাবু চশমা প্রতীকে পেয়েছেন ৩৫৪৯ ভোট। পাঁচগ্রাম ইউপিতে ভোটার সংখ্যা ৬হাজার ৫’শ ৫৪। এই ইউনিয়নে ৬ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন। চশমা প্রতীক নিয়ে কালিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এস এম সাইফুজ্জামান ১৭৪৮ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী ঘোড়া প্রতীকের বাদশা মোল্যা পেয়েছেন ১২৯২ ভোট।

দলীয় প্রতিক ছাড়া এ নির্বাচনে ভোটারদের উপস্থিতি ব্যাপক থাকলেও ইভিএম এর কারনে ধীরগতিতে ভোট গ্রহন করায় ক্ষুব্ধ ছিলো ভোটাররা। অনেকের আবার ফিংগার না মেলায় ভোট দিতে না পেরে ফিরে গেছেন।অন্ততঃ ২০ ভাগ ভোটার আঙ্গুলের ছাপ না মেলায় ভোট দিতে পারছেন না বলে জানিয়েছিলেন বিভিন্ন কেন্দ্রের প্রিজাইডিং কর্মকর্তরা।

দয়া করে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..