শুক্রবার, ১৯ জুলাই ২০২৪, ১১:২৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
সাতক্ষীরা কোটা আন্দোলনকারীদের সাথে ছাত্রলীগ ও মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদের নেতা-কর্মীদের মধ্যে হামলা-পাল্টা হামলা। চবিতে চলছে হল সিলগালা। নড়াইলে পুকুরে গোসল করতে গিয়ে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীর মৃত্যু  নড়াইলে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১৭   সিংড়ায় মাসব্যাপী চলনবিল বৃক্ষরোপণ উৎসবে বিনামূল্যে গাছের চারা বিতরণ পুরাতন সাতক্ষীরায় জমিজমা বিরোধে ৪জনকে পিটিয়ে আহত কোটা সংস্কারের দাবিতে বঙ্গভবনের স্মারকলিপি দিলেন শিক্ষার্থীরা যারা না জেনে সমালোচনা করেন, তারা মানসিক রোগী: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিশু গৃহকর্মীকে  নির্যাতনের ঘটনায় দম্পতি গ্রেফতার। সাভারে চুরির অপবাদ দিয়ে শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক দুই

রাজধানীর দূর্ভোগের অপর নাম মেয়র হানিফ ফ্লাইওভার

আরাফাত হোসেন ঢাকা:
  • আপলোডের সময় : শনিবার, ২ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
 রাজধানীর মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারে ঘণ্টার পর ঘণ্টা যানজটের ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে লাখ লাখ যাত্রী। যানজট থেকে পথচারীদের ভোগান্তি কমাতে একের পর এক ফ্লাইওভার নির্মাণ করা হচ্ছে। কিছু ফ্লাইওভারে টোল না থাকলেও মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারে যানবাহনকে টোল দিতে হয়। যাত্রীরাও যানজট এড়াতে অতিরিক্ত টাকা ভাড়ার সঙ্গে দিয়ে থাকেন। কিন্তু মেয়র মোহাম্মদ হানিফ ফ্লাইওভারে যানজট নিত্য ঘটনা হয়ে গেছে। প্রায় প্রতিদিনই সায়েদাবাদ থেকে গুলিস্তান পর্যন্ত দীর্ঘ যানজটে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকে থাকতে হয় গণপরিবহন। ফলে যাত্রীরা যে উদ্দেশ্যে অতিরিক্ত টাকা দিচ্ছেন, সে সুফল পাচ্ছেন না।
সরেজমিন দেখা যায়, গুলিস্তান-যাত্রাবাড়ী মেয়র হানিফ ফ্লাইওভার থেকে যানবাহন নামতে গেলেই যানজট। গুলিস্তান পয়েন্টে প্রতিদিন যানজট লাগছে। কখনো কখনো সে যানজট ফ্লাইওভারের পেছনে কয়েক কিলোমিটার দীর্ঘ হয়। ভুক্তভোগীদের মতে, এ যেন ভাড়ার অতিরিক্ত টাকা দিয়ে ভোগান্তি কেনা।ফ্লাইওভারের কুতুবখালী প্রান্তে গিয়ে দেখা গেছে, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক ধরে যেসব লোকাল বাস আসছে, ফ্লাইওভারের প্রবেশমুখে সেগুলো যাত্রী ওঠানামা করানোর জন্য দাঁড়াচ্ছে। এতে করে ফ্লাইওভারের প্রবেশমুখে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে।অন্যদিকে যাত্রবাড়ী মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের নিচের সড়ক সংস্কার কাজ চলায় বন্ধ রয়েছে, এতে করে নিচের গাড়িগুলো ফ্লাইওভার ব্যবহার করায় প্রতিদিন তীব্র যানযটে পড়ছে যাত্রীরা।প্রতিদিন অফিসগামী যাত্রীরা যানযটের কারনে নির্দিষ্ট সময়ে অফিসে যেতে পারছে না।
হানিফ ফ্লাইওভারের গোলাপবাগ দিয়ে কমলাপুর বা রামপুরাগামী গাড়িগুলো নামে, এদিক দিয়ে অপেক্ষাকৃত কম গাড়ি নামে। অথচ সন্ধ্যা হলেই গোলাপবাগে নামতে গিয়েও প্রতিদিন যানজটে আটকে থাকতে হয় ঘন্টার পর ঘন্টা। সরেজমিনে দেখা গেছে, ফ্লাইওভার থেকে নামার আগেই বাসগুলো দাঁড় করিয়ে যাত্রী নামানো হয়। এতে করে পেছনের দিকে যানবাহনের দীর্ঘ সারি থেকে যানজটের সৃষ্টি হয়। একই সময় ফ্লাইওভারের মুখেই নিচের রাস্তার গাড়িগুলো ঘুরানো হয়। দুটো মিলে ভয়াবহ যানজটের সৃষ্টি হয়।
গুলিস্তানের যানজট আরো ভয়াবহ। গুলিস্তানে যানবাহন নামতে গেলে যানজটে পড়তে হবে—এটা যেন নির্ধারিত বিষয়। এখানেও ফ্লাইওভার অতিক্রম করার আগেই গাড়িগুলো ডান দিকে মোড় নেওয়ার নামে দাঁড়িয়ে যাত্রী তোলে। পেছনের গাড়িগুলো আর সামনে এগুতে পারে না। এভাবে প্রতিদিন ফ্লাইওভারের ওপরে কয়েক কিলোমিটার যানজট সৃষ্টি হয় হরদমে।

দয়া করে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..