শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০২:৩৪ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
সাতক্ষীরা কোটা আন্দোলনকারীদের সাথে ছাত্রলীগ ও মুক্তিযোদ্ধা সংহতি পরিষদের নেতা-কর্মীদের মধ্যে হামলা-পাল্টা হামলা। চবিতে চলছে হল সিলগালা। নড়াইলে পুকুরে গোসল করতে গিয়ে দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীর মৃত্যু  নড়াইলে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ১৭   সিংড়ায় মাসব্যাপী চলনবিল বৃক্ষরোপণ উৎসবে বিনামূল্যে গাছের চারা বিতরণ পুরাতন সাতক্ষীরায় জমিজমা বিরোধে ৪জনকে পিটিয়ে আহত কোটা সংস্কারের দাবিতে বঙ্গভবনের স্মারকলিপি দিলেন শিক্ষার্থীরা যারা না জেনে সমালোচনা করেন, তারা মানসিক রোগী: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শিশু গৃহকর্মীকে  নির্যাতনের ঘটনায় দম্পতি গ্রেফতার। সাভারে চুরির অপবাদ দিয়ে শিশু গৃহকর্মীকে নির্যাতন, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক দুই

দুবাই বাংলাদেশ কনস্যুলেটে “বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০৪তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস উদযাপন।

মামুনুর রশীদ, সংযুক্ত আরব আমিরাত:
  • আপলোডের সময় : রবিবার, ১৭ মার্চ, ২০২৪

 

বাংলাদেশ কনস্যুলেট, দুবাই ও উত্তর আমিরাত কর্তৃক যথাযোগ্য মর্যাদায় “জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০৪ তম জন্মবার্ষিকী ও জাতীয় শিশু দিবস-২০২৪” উদযাপন করা হয়েছে।
দুবাই বাংলাদেশ কন্সুলেটে’র কন্সাল জেনারেল বি এম জামাল হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ কনস্যুলেট দুবাই- এর কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, বাংলাদেশ বিমান ও জনতা ব্যাংকের কর্মকর্তাবৃন্দ, দুবাই ও উত্তর আমিরাতের বাঙালী কমিউনিটির নেতৃবৃন্দসহ প্রবাসী বাংলাদেশীগণ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের শুরুতে কন্সাল জেনারেল বি এম জামাল হোসেন কনস্যুলেটের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং আমন্ত্রিত অতিথিবর্গের উপস্থিতিতে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন এবং বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতীতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন।

আলোচনা অনুষ্ঠানের শুরুতেই এ গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় দিবস উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী ও পররাষ্ট্র মন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত বাণীসমূহ পাঠ করে শোনান যথাক্রমে কনস্যুলেটের কাউন্সেলর (শ্রমকল্যাণ) মো. আব্দুস সালাম, কাউন্সেলর (পাসপোর্ট ও ভিসা) মোহাম্মদ কাজী ফয়সাল এবং প্রথম সচিব (প্রেস) মো. আরিফুর রহমান।

বাণীপাঠ শেষে এ দিবসটির ওপর একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয় এবং অতঃপর একটি উন্মুক্ত আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়।

বক্তাগণ ১৭ই মার্চ-উদযাপনের গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরে বলেন, আগামী প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কে জানানো এবং তাঁর আদর্শে অনুপ্রাণিত করে দেশাত্মবোধের চেতনায় উন্নত সাহসী নাগরিক গঠন করার জন্য এ দিবস উদযাপন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।

সভাপতির বক্তব্যে বি এম জামাল হোসেন বলেন, ১৭ মার্চ হল শৃঙ্খলমুক্তির মহানায়কের জন্মদিন। বঙ্গবন্ধু ছিলেন বাঙালীর হৃদয়ে লালিত হাজার বছরের শোষণমুক্তির স্বপ্ন বাস্তবায়নকারী মহামানব। তিনি বর্তমান ও আগামী প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ অনুসরণ করে নিজেদেরকে সুনাগরিক হিসেবে গড়ে ওঠা এবং দেশের উন্নয়নে আত্মনিয়োগ করার আহবান জানান।

অনুষ্ঠান শেষে সকলের উপস্থিতিতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, তাঁর পরিবারের সকল শহীদ সদস্যদের আত্মার মাগফিরাত কামনায় এবং দেশের উন্নয়ন ও শান্তি কামনা করে দোয়া মোনাজাত করা হয়।

দয়া করে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..