বুধবার, ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:২৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
মধুখালীতে অসহায় ও দুস্থ মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী লোহাগড়ায় সংখ্যালঘুদের চলাচলের রাস্তা অবরুদ্ধ করে রেখেছে একদল ভূমি দস্যু  সন্ত্রাসী  লোহাগড়ায় পুলিশের তান্ডব প্রতিবাদে  এলাকাবাসীর বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন  বাগেরহাটের মংলায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ১৫ কেজি গাঁজাসহ এক নারী মাদক কারবারি আটক নারায়ণগঞ্জ সিদ্ধিরগঞ্জে হিলফুল ফুজুল যুব সংঘের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রিক বিতরণ খুলনার রূপসায় সালাম জুট মিলে আগুন, নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ১৬ টি ইউনিট , নড়াইলে ধান ক্ষেতে প্রতিক্ষণ বিমান!  রাউজান থানায় সড়ক দূর্ঘটনায় বাঁশখালীর ২ হাফেজ ইমামের মৃ*ত্যু বাগেরহাটে অসহায় হত দরিদ্র মানুষের হাতে ঈদ উপহার তুলে দিলেন জনতার এমপি শেখ সারহান নাসের তন্ময় গণমাধ্যমকর্মীদের সংগঠন বাংলাদেশ রিপোর্টার্স ইউনিটি’র উদ্যোগে ইফতার ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

যথাযথ মর্যাদায় সরকারি সা’দত কলেজে পালিত হলো শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস

সরকারি সা'দত কলেজ প্রতিনিধি।
  • আপলোডের সময় : বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

 

মাতৃভাষার অধিকার রক্ষায় ভাষা আন্দোলনের সূচনা হয়েছিল ১৯৪৮ সালের ১১ই মার্চ। বাংলা ভাষাকে বাদ দিয়ে উর্দুকে রাষ্ট্রভাষা করার জন্য বিরাট ষড়যন্ত্র চলছিল। এভাবেই চলে যায় বহুদিন। ১৯৫২ সালের ২১শে ফেব্রুয়ারি রাষ্ট্রভাষা বাংলার দাবিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবন সংলগ্ন আমতলায় ছাত্রসভা। নুরুল আমীন সরকার আরোপিত ১৪৪ ধারা ভঙ্গের প্রস্তুতি। ছাত্রসভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক ১০ জন মিছিল করে ১৪৪ ধারা ভাঙবে। এরপর ছাত্রসমাজ প্রতিবাদ মিছিল করে ১৪৪ ধারা ভাঙলো। সরকারের পেটোয়া পুলিশ বাহিনী গুলি ছুড়লে সালাম, বরকত, রফিক, জব্বারসহ অনেকে শহীদ হন। ১৯৯৯ খ্রিষ্টাব্দের ১৭ নভেম্বর অনুষ্ঠিত ইউনেস্কোর প্যারিস অধিবেশনে প্রস্তাব উত্থাপন করা হয় ও এতে ১৮৮টি দেশ সমর্থন জানালে একুশে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণা করা হয় এবং ২০০০ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি থেকে দিবসটি জাতিসংঘের সদস্যদেশ সমূহে যথাযথ মর্যাদায় পালিত হয়ে আসছে।

আজ ২১শে ফেব্রুয়ারি। শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। সরকারি সা’দত কলেজে বিভিন্ন কর্মসূচির মাধ্যমে এই দিনটি যথাযথ মর্যাদায় পালন করা হয়। কর্মসূচির মধ্যে প্রথমেই ছিল সূর্যোদয়ের সাথে সাথে জাতীয় পতাকা উত্তোলন ও প্রভাত ফেরি। সকাল ০৬ঃ৪৫ ঘটিকায় কলেজ প্রশাসন সহ বিভিন্ন সংগঠন থেকে শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ করা হয়। সকাল ০৮ঃ৪৫ ঘটিকায় “শেখ রাসেল দেয়ালিকা” উন্মোচন করা হয়। সর্বশেষ সকাল ০৯ঃ০০ ঘটিকায় শহীদ মিনার প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয় আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অত্র কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর সুব্রত নন্দী। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপাধ্যক্ষ প্রফেসর সুলতান আহম্মেদ এবং জনাব মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান, সম্পাদক, শিক্ষক পরিষদ, সরকারি সা’দত কলেজ। স্বাগত বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনাব মোঃ আবু সাঈদ, সদস্য সচিব, মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন কমিটি – ২০২৪ ; সহযোগী অধ্যাপক, রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগ। উক্ত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রফেসর ড. মোঃ আশেকুল হাসান , আহ্বায়ক, মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন কমিটি-২০২৪ ; বিভাগীয় প্রধান, ব্যবস্থাপনা বিভাগ। উপস্থিত ছিলেন সরকারি সা’দত কলেজ ছাত্র সংসদের সাবেক জিএস জনাব মোঃ জিন্না মিয়া ও সাবেক এজিএস সোহেল আনছারী। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সরকারি সা’দত কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাবেক আহ্বায়ক ও সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক রতন মিয়া, সাবেক সিনিয়র যুগ্ন আহ্বায়ক মোঃ সবুজ হোসেন, সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক লুৎফর রহমান, সাবেক যুগ্ন আহ্বায়ক মোঃ সবুজ হোসাইন এবং হল শাখার নেত্রী নাজনীন আক্তার এ্যানি সহ কলেজ শাখা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ। আরও উপস্থিত ছিলেন সরকারি সা’দত কলেজ শাখার বিএনসিসি, রোভার স্কাউট এবং রেড ক্রিসেন্ট এর সদস্যবৃন্দ।
আলোচনা সভায় শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের তাৎপর্য এবং কলেজের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন শিক্ষক ও কলেজ শাখা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ । এরপর বিভিন্ন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন – ২০২৪ এর সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।

 

দয়া করে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..