শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:১১ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
মধুখালীতে অসহায় ও দুস্থ মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী লোহাগড়ায় সংখ্যালঘুদের চলাচলের রাস্তা অবরুদ্ধ করে রেখেছে একদল ভূমি দস্যু  সন্ত্রাসী  লোহাগড়ায় পুলিশের তান্ডব প্রতিবাদে  এলাকাবাসীর বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন  বাগেরহাটের মংলায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ১৫ কেজি গাঁজাসহ এক নারী মাদক কারবারি আটক নারায়ণগঞ্জ সিদ্ধিরগঞ্জে হিলফুল ফুজুল যুব সংঘের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রিক বিতরণ খুলনার রূপসায় সালাম জুট মিলে আগুন, নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ১৬ টি ইউনিট , নড়াইলে ধান ক্ষেতে প্রতিক্ষণ বিমান!  রাউজান থানায় সড়ক দূর্ঘটনায় বাঁশখালীর ২ হাফেজ ইমামের মৃ*ত্যু বাগেরহাটে অসহায় হত দরিদ্র মানুষের হাতে ঈদ উপহার তুলে দিলেন জনতার এমপি শেখ সারহান নাসের তন্ময় গণমাধ্যমকর্মীদের সংগঠন বাংলাদেশ রিপোর্টার্স ইউনিটি’র উদ্যোগে ইফতার ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

জাজিরা বিয়ের দাবিতে ছাত্রলীগের সভাপতির বাড়িতে এক তরুনীর অনশন।

মো নাদিম হোসেন (জাজিরা উপজেলা প্রতিনিধি)
  • আপলোডের সময় : শনিবার, ৭ জানুয়ারী, ২০২৩
শরীয়তপুর জেলারা জাজিরা থানার  সরাকারি বি,কে নগর বঙ্গবন্ধু ডিগ্রি কলেজ কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতির বাড়িতে প্রেমিকার অনশনের ঘটনা ঘটেছে। শুক্রবার (৬ জানুয়ারি) সকাল ১০টার সময় জাজিরা থানার  বি,কে নগর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের কিনাউল্লা মাদবর কান্দি গ্রামে এই ঘটনাটি ঘটে এবং প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত অনশন চলমান রয়েছে।
সরেজমিনে গিয়ে জানা যায়, বি,কে নগর কিনাউল্লাহ মাদবর কান্দি গ্রামের আলতাফ মাদবরের অনার্স পড়ুয়া ছেলে বি,কে নগর বঙ্গবন্ধু কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি সুমন মাদবর (২৫) এর বাড়িতে অনশনরত অবস্থায় রয়েছে তার প্রেমিকা তৃষা আক্তার (২২)।
তৃষা আক্তার শিবচরের কাঠালবাড়ি এলাকার খান কান্দি গ্রামের মুনসের খানের মেয়ে। একই কলেজে পড়ার সুবাদে তার সাথে সুমনের প্রায় ৩ বছরের প্রেমের সম্পর্ক রয়েছে। তৃষার পরিবার তাকে অন্যত্র বিয়ে দিতে চাইলে এবং সুমন তাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানালে সে সুমনের বাড়িতে অনশনের সিদ্ধান্ত নিয়ে শুক্রবার সকালে চলে আসে সুমনের বাড়িতে।
এসময় সুমন মাদবর পালিয়ে গেলেও সুমনের পরিবারের লোকজন ছিলো বাড়িতে। তবে সংবাদকর্মীদের সাথে কোন কথা বলতে রাজি হয়নি তারা। এমনকি তাদের ঘরের মধ্যে তৃষা আক্তারকে আটকে রেখে তৃষার সাথে সংবাদকর্মীদের কথা বলতে দেয়া হয়নি এবং ঘরে কাউকে প্রবেশ করতেও দেয়নি সুমনের পরিবারের লোকজন।
স্থানীয় রাজ্জাক মাদবর নামক এক ব্যক্তি  তৃষার পরিবারের সাথে কথা হয়েছে বলে জানিয়ে বলেন, আমরা মেয়ের অভিভাবকদের সাথে কথা বলে তাদেরকে আসতে বলেছি। আসলে কথাবার্তা বলে তাদের বিয়ের ব্যবস্থা করবে বলেও জানান তিনি।
বি,কে নগর বঙ্গবন্ধু কলেজের প্রিন্সিপাল আলমগীর হোসাইনকে বিষয়টি সম্পর্কে জিজ্ঞেস করা হলে তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানেন না বলে জানান। এমনকি তাদের দু’জনের মধ্যে প্রেম ছিলো এটিও নাকি জানতেন না তিনি।
বি,কে নগর ইউনিয়নের
চেয়ারম্যান আলহাজ্ব এসকান্দার আলী ভুইয়া জানান, আমি খবরটি শুনেছি এবং স্থানীয়দের অনেকেই আমাকে ফোন দিয়েছিলো। আমি জরুরি প্রয়োজনে ঢাকায় থাকায় রাজ্জাক মাদবরসহ স্থানীয়দের বিষয়টি দেখার জন্য বলেছি।
জাজিরা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ কামরুল হাসান সোহেল জানান, আমরা খবরটি পেয়েছি এবং বিষয়টি সম্পর্কে খোঁজখবর নেয়া হচ্ছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধি হিসেবে চেয়ারম্যানের সাথে কথা বলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

দয়া করে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..