শুক্রবার, ০১ মার্চ ২০২৪, ০৪:৪৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
পিপিএম (রাষ্ট্রপতি) পদক পেলেন খুলনার সন্তান পুলিশ পরিদর্শক মনিরুজ্জামান। লোহাগড়ায় সৎ মায়ের হাতে ৩ বছরের শিশু খুন রাষ্ট্রপতি পদক পেলেন সিলেট জেলার পুলিশ সুপার’’ রামপালে স্থানীয় সরকার দিবস উদযাপন  খুলনায় গোয়েন্দা পুলিশের হাতে আটক অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী নরসিংদীতে জাতীয় স্থানীয় সরকার দিবস – ২০২৪ পালিত। কক্সবাজারে পুলিশ সুপার’ ও র‍্যাব অধিনায়কসহ পুলিশ পদক পেলেন দশ কর্মকর্তা যথাযথ মর্যাদায় সরকারি সা’দত কলেজে পালিত হলো শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস আমিরাতে বাংলাদেশ মিশনের মাতৃভাষা দিবস পালন ভাষা শহীদদের প্রতি খুলনা জেলা ও মহানগর যুবদলের শ্রদ্ধা নিবেদন 

চট্টগ্রামে তিন কন্যার বিয়ে দিচ্ছে জেলা প্রশাসন।

স্টাফ রিপোর্টারঃ
  • আপলোডের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৩ অক্টোবর, ২০২২

ভাগ্য বিড়ম্বনায় জন্মের পর থেকেই মা-বাবার মমতায় সমাজসেবা অধিদপ্তরের শিশু নিবাসে বেড়ে ওঠা তিন কন্যার বিয়ে দিচ্ছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন। সরকারিভাবে বিয়ের আয়োজন করা এই তিন তরুণী হলেন মর্জিনা আক্তার, মুক্তা আক্তার ও তানিয়া আক্তার। তাদের বিয়ের জন্য যাবতীয় স্বর্ণালঙ্কার পাঠিয়েছেন খোদ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
বৃহস্পতিবার (১৩ অক্টোবর) রাত ৮টায় চট্টগ্রামের অফিসার্স ক্লাবে আয়োজিত জমকালো বিয়ের আয়োজনে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন দাওয়াত দিয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান। তিনি বলেন, এ আয়োজনে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে দাওয়াত দেওয়া হয়েছে। তিনি উপস্থিত না থাকলেও মায়ের মমতায় তিনি তাদের জন্য স্বর্ণালঙ্কারসহ উপহার পাঠিয়েছেন। আমরা সেই তিন কন্যাকে তাদের মা-বাপের শূন্যতা বুঝতে দিইনি। যে মেয়েদের বিয়ের অনুষ্ঠান, তারা কেউ এতিম নয়, সবাই আমাদের সন্তান।জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মমিনুর রহমান ৩ কন্যাকে পাত্র মো. ওমর ফারুক, মো. নূরউদ্দিন ও হেলাল উদ্দিনের হাতে তুলে দেবেন। জেলা প্রশাসকের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিন কন্যা জানান, মা-বাবার শূন্যতা জেলা প্রশাসক বুঝতে দেননি। তাদের নিয়ে এই আয়োজনে তারা প্রধানমন্ত্রী ও জেলা প্রশাসকের প্রতি আজীবনের কৃতজ্ঞা জানান।

জেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, তাদের দেনমোহর নির্ধারণ হয়েছে মোট ৭ লাখ টাকা। বরযাত্রী থাকছে ৩০০ জন। ধনাঢ্য পরিবারের সন্তানদের বিয়েতে যেমন গায়ে হলুদের আয়োজন থাকে তেমনি তাদেরও গায়ে হলুদ অনুষ্ঠান হয়েছে। সেখানে জেলা প্রশাসক মোমিনুর রহমানসহ প্রশাসনের কর্মকর্তাগণ অংশ নিয়েছেন। এছাড়া গয়নাগাটি, সাজসজ্জা ও পোশাক-আশাক থেকে শুরু করে আদর-আপ্যায়নের ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে।

দয়া করে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..