বুধবার, ১০ এপ্রিল ২০২৪, ০৪:৫৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
মধুখালীতে অসহায় ও দুস্থ মানুষের মাঝে ঈদ উপহার সামগ্রী বিতরণ করলেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী লোহাগড়ায় সংখ্যালঘুদের চলাচলের রাস্তা অবরুদ্ধ করে রেখেছে একদল ভূমি দস্যু  সন্ত্রাসী  লোহাগড়ায় পুলিশের তান্ডব প্রতিবাদে  এলাকাবাসীর বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন  বাগেরহাটের মংলায় গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে ১৫ কেজি গাঁজাসহ এক নারী মাদক কারবারি আটক নারায়ণগঞ্জ সিদ্ধিরগঞ্জে হিলফুল ফুজুল যুব সংঘের উদ্যোগে ঈদ সামগ্রিক বিতরণ খুলনার রূপসায় সালাম জুট মিলে আগুন, নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ১৬ টি ইউনিট , নড়াইলে ধান ক্ষেতে প্রতিক্ষণ বিমান!  রাউজান থানায় সড়ক দূর্ঘটনায় বাঁশখালীর ২ হাফেজ ইমামের মৃ*ত্যু বাগেরহাটে অসহায় হত দরিদ্র মানুষের হাতে ঈদ উপহার তুলে দিলেন জনতার এমপি শেখ সারহান নাসের তন্ময় গণমাধ্যমকর্মীদের সংগঠন বাংলাদেশ রিপোর্টার্স ইউনিটি’র উদ্যোগে ইফতার ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মোহনগঞ্জে জলাশয়ের দখল নিয়ে দুপক্ষের সংঘর্ষ, নিহত ১

মোহনগঞ্জ প্রতিনিধি,মোহনগঞ্জ,নেত্রকোণা:
  • আপলোডের সময় : মঙ্গলবার, ৩ অক্টোবর, ২০২৩
 জলাশয়ের দখল নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় সাইফুল ইসলাম (৩৫) নামে একজন নিহত হয়েছেন। সংঘর্ষে উভয় পক্ষের অন্তত ২০-২৫ জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে আটজন গুরুতর আহত হয়েছেন। গুরুতর আহতদের মধ্যে দুইজনকে গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
মঙ্গলবার (৩ অক্টোবর) বিকালে মোহনগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ রফিকুল ইসলাম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
এর আগে সোমবার (২ অক্টোবর) দুপুরে উপজেলার শ্যামপুর গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষের শেষে আহতদের রক্ত দেখে ও ঘটনার জেরে চিৎকার করে জ্ঞান হারায় সাইফুল ইসলাম। পরে উদ্ধার করে বিকেলে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
সাইফুল ইসলাম শ্যামপুর গ্রামের মৃত. মালুম হোসেনের ছেলে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার শ্যামপুর গ্রামের ‘শ্যামপুর কুড়’ নামে জলাশয়টি বেশ কয়েক বছর আগে আদালতের রায়ে উন্মুক্ত ঘোষণা করা হয়। কুড়টিতে প্রচুর মাছ হয়। মাছ নিয়ে যেন ঝগড়া না হয় সেই কারণে এলাকাবাসী মিলে এটি ইজারা দিয়ে সেই টাকা শ্যমাপুর, নোয়াগাঁওসহ চার গ্রামের মসজিদে দান করে দেন। তবে দুই বছর ধরে প্রভাব খাটিয়ে স্থানীয় আতিক মিয়া কুড়টি দখলে নিয়ে নেন। পরে গ্রামবাসীর চাপে কিছু টাকা দেন তিনি। এবার গ্রামের লোকজন কুড়টি ইজারা দেওয়ার উদ্যোগ নিলে আতিক মিয়ার সঙ্গে এ নিয়ে দ্বন্দ্ব বাধে। এক পর্যায়ে দেশীয় অস্ত্র নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ শুরু হলে উভয় পক্ষের অন্তত ২০-২৫ জন আহত হয়। সংঘর্ষ শেষে চিৎকার করে জ্ঞান হারান সাইফুল মিয়া। পরে উদ্ধার করে মোহনগঞ্জ হাসপাতালে নিয়ে গেলে বিকেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে খবর পেয়ে সন্ধ্যা ৭টার দিকে হাসপাতাল থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ।
সংঘর্ষে আহত আতিক মিয়া বলেন, আমি ইজারা নিয়েই কুড়টিতে মাছ ধরেছি। এবার ইজারা দেওয়া হবে শুনে উপস্থিত হলে লিটন তালুকদারসহ আরও কয়েকজনের নেতৃত্বে গ্রামের কিছু লোকজন আমার ওপর হামলা চালায়। পরে আমার লোকজন এসে তাদের প্রতিহত করতে চাইলে সংঘর্ষ হয়। এতে আমি নিজে আহত হই। এছাড়া আমার পক্ষের রুবেল, রাফিসহ ১০-১২ জন আহত হয়। আমরা চারজন মমেক হাসপাতালে ভর্তি রয়েছি। অন্যরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন। তবে সাইফুল আগে থেকেই হার্টের রোগী ছিল। মারামারির পর স্ট্রোক করে তার মৃত্যু হয়েছে। তাকে আমাদের কেউ মারেনি।
এদিকে, শ্যামপুর গ্রামের লিটন তালুকদার জানান, গত দুই বছর কুড়টি আতিক প্রভাব খাটিয়ে দখলে রেখেছিল। এবার গ্রামবাসী তার থেকে মুক্ত করে ইজারা দিতে চাইলে আতিক ক্ষিপ্ত হয়ে লোকজন নিয়ে কুড়ের কাছে অবস্থান নেয়। এলাকার কেউ তার সঙ্গে ছিল না। পাশের গ্রাম থেকে লোকজন ভাড়া করে এনেছে। পরে গ্রামের লোকজন গিয়ে তাদের ধাওয়া করে। এতে সংঘর্ষ বাধলে গ্রামের আল আমিন, শফিক ও সেকুল মিয়াসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়। এদের মধ্যে আল আমিন ও শফিককে মমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। বাকিরা স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা নিয়েছেন। তবে সংঘর্ষের পর আহত সেকুল মিয়ার রক্ত দেখে ক্ষিপ্ত হয়ে তার ভাই সাইফুল স্ট্রোক করে মারা যায়।
ওসি মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, রাতেই লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্তের প্রতিবেদন পেলে মৃত্যুর কারণ জানা যাবে। এখনো এ ঘটনায় কেউ অভিযোগ করেননি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দয়া করে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..