শনিবার, ০২ মার্চ ২০২৪, ১০:২০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ

চট্টগ্রাম বোর্ডের ফলাফলে অসন্তোষ ২৬ হাজার শিক্ষার্থী।

মোঃআসিফুল ইসলাম সানি, বিশেষ প্রতিনিধি,চট্টগ্রামঃ
  • আপলোডের সময় : সোমবার, ৭ আগস্ট, ২০২৩

চট্টগ্রামে এসএসসির ৭১ হাজার ১০৮টি উত্তরপত্র পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করেছে শিক্ষার্থীরা। বোর্ডের প্রকাশিত ফলাফলে অসন্তুষ্ট হয়ে ২৬ হাজার ৬২৩ জন শিক্ষার্থী এসব আবেদন করেছে। এসব আবেদনের প্রেক্ষিতে যদিও খাতা পুনঃমূল্যায়ন হবে না, শুধুমাত্র যোগফলে কোন ত্রুটি আছে কিনা তা দেখে সংশোধন করা হবে।গত ২৯ জুলাই থেকে ৪ আগস্ট জমা পড়া এসব আবেদনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি গণিত এবং ইংরেজির দুই পত্রে পুনঃনিরীক্ষণের। শিক্ষাবোর্ড থেকে জানা যায়, এবারের পুনঃনিরীক্ষণের জন্য বাংলা প্রথম পত্র বিষয়ে ৪ হাজার ৮৯১টি, বাংলা দ্বিতীয় পত্রে ৪ হাজার ৭১১টি, ইংরেজি প্রথম পত্রে ৮ হাজার ৭৬১টি, ইংরেজি দ্বিতীয় পত্রে ৮ হাজার ৪৮৬টি, গণিতে ১০ হাজার ৫১৯টি, ইসলাম শিক্ষায় ৪ হাজার ২৭১টি, উচ্চতর গণিতে ৩ হাজার ৫৫১টি, সাধারণ বিজ্ঞানে ২ হাজার ২১৯টি, পদার্থ বিজ্ঞানে ৩ হাজার ৬০০টি, রসায়নে ৩ হাজার ২৯৫টি, জীববিজ্ঞানে ৩ হাজার ৬২১টি, ব্যবসায় উদ্যোগে ১ হাজার ২৮২টি, হিসাববিজ্ঞানে ১ হাজার ৭৮৪টি, বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয় বিষয়ে ৪ হাজার ৯৩৪টি, ফিন্যান্স ও ব্যাংকিংয়ে ১ হাজার ৪৪টি, ভূগোল ও পরিবেশ বিজ্ঞানে ৪৭০টি, হিন্দুর্ধম বিষয়ে ৭৬১টি, বাংলাদেশের ইতিহাস ও বিশ্ব সভ্যতা বিষয়ে ৩৯৩টি, কৃষিতে ৮৯৭টি, পৌরনীতিতে ৩৪৫টি, অর্থনীতিতে ৮৯টি, গার্হস্থ্য বিজ্ঞানে ২৫৯টি, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ে ৭৯১টি, বৌদ্ধর্ধম বিষয়ে ১২৬টি, এবং খৃিষ্টান ধর্ম বিষয়ে ৮টি পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করে শিক্ষার্থীরা। এবারের মোট আবেদন গত বছরের তুলনায় প্রায় তিন গুণ বেশি। গত বছর পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন ছিল ২৮ হাজার ৬০৭টি। এর আগের বছর এ সংখ্যা ছিল ৭ হাজার ৮২৩টি। যদিও গত ২০২১ সালে আবশ্যিক বিষয়গুলোর পরীক্ষা না হওয়ায় আবেদনের সংখ্যা কম ছিল।গত ২৮ জুলাই প্রকাশিত ফলাফলে যারা অকৃতকার্য হয়েছে অথবা আশা অনুযায়ী ফলাফল পায়নি তারাই শিক্ষাবোর্ডের নির্ধারিত সময়ে পুনঃনিরীক্ষণের জন্য আবেদন করেছে। পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক নারায়ণ চন্দ্র নাথ বলেন, পুনঃনিরীক্ষণের জন্য যারা আবেদন করেছে তাদের উত্তরপত্রে নাম্বার যোগ বা উঠানোর ক্ষেত্রে কোনো ভুল পরিলক্ষিত হলে তা সংশোধন করে পুনরায় ফল প্রকাশ করা হবে। তাছাড়া এবার পুনঃনিরীক্ষণের রেজাল্ট প্রকাশ হবে ২৮ আগস্ট।সাধারণত, পুনঃনিরীক্ষণের ফল মূল ফলাফল প্রকাশের ৩০ দিনের মধ্যেই প্রতি শিক্ষাবোর্ড এর নিজ নিজ ওয়েবসাইটে পিডিএফ আকারে প্রকাশ করে থাকে। এছাড়া আবেদনকারীর আবেদন করার সময় প্রদান করা ব্যক্তিগত মোবাইল নম্বরেও কেন্দ্রীয়ভাবে ফলাফল এসএমএস এর মাধ্যমে জানিয়ে দেওয়া হয়।

দয়া করে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..