বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০৩:৫০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
নড়াইল সদরে দ্বিমুখী ও লোহাগড়া উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে লড়াই হবে ত্রিমুখী বাগেরহাটে মোরেলগঞ্জে জীবনের ঝুৃঁকি নিয়ে ভাঙা কাঠের পুল দিয়ে পার হচ্ছে সাধারণ মানুষ। চা শ্রমিক দিবস,মুল্লুকে চলো আন্দোলনের ১০৩ বছর। নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ ভিত্তিহীন – মাশরাফী কুকুরের দল তাকে একা পেয়ে কামড়ে ছিন্নভিন্ন করে ফেলে বাগেরহাটের শরণখোলায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীরির আত্মহত্যা সিংড়ায় ভোক্তা-অধিকারের অভিযানে তিন প্রতিষ্ঠান কে জরিমানা  সাতক্ষীরার তালায় ট্রাক উল্টে ২ শ্রমিক নিহত আহত ১১   বাগেরহাটের রামপালে লায়ন ড.শেখ ফরিদুল ইসলামের উদ্যোগে চোখের ছানি অপারেশন ও লেন্স সংযোজন ৫০০ রোগী বাছাই লোহাগড়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী কে এম ফয়জুল হক রোমের নির্বাচনী অফিস ভাংচুর ও পোষ্টার ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ 

লোহাগড়ায় সাদী হত্যাকারীদের শাস্তির দাবীতে মানববন্ধন।

স্টাফ রিপোর্টার
  • আপলোডের সময় : শনিবার, ২৯ জুলাই, ২০২৩

নড়াইল জেলার লোহাগড়া উপজেলা গেটের সামনে কালনা- বেনাপোল মহাসড়কের পাশে লোহাগড়া ফিলিং স্টেশন এর ম্যানেজার নিহত শেখ সাদী হত্যার বিচারের দাবীতে তার পরিবার ও এলাকাবাসীর মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

 

২৯ জুলাই শনিবার সকালে কালনা – বেনাপোল মহাসড়কের লোহাগড়া উপজেলা পরিষদের মেইন গেটের সামনে ১ ঘন্টা ব্যাপী মানববন্ধন অংশ নেন সাদীর পরিবার ও এলাকাবাসী।

গত ২৫-৬-২৩ তারিখে লোহাগড়া ফিলিং স্টেশনের মালিক সৈয়দ বোরহান উদ্দিনের পাম্পের ম্যানেজার হিসাবে মৃত সাদী কর্মরত থাকাকালীন সময়ে মৃত্যু বরন করেন।

মানববন্ধনে সাদীর স্ত্রী সাহিদা বেগম তার বক্তব্যে বলেন আমার স্বামীর স্বাভাবিক মৃত্যু হয় নাই, আমার স্বামীকে বোরহান উদ্দিন, সোহেল, সজিব,সহ আরও ৩/৪ জনে শারিরীক নির্যাতন করে হত্যা করেছে।

লোহাগড়া ফিলিং স্টেশন এর মালিক এবং দিঘলিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সৈয়দ বোরহান উদ্দিন আমার পরিবারের সকলকে গুম করা সহ বিভিন্ন ভয়ভীতি প্রদর্শন করে মামলা করতে দেয় নাই এবং আমার স্বামীর লাশ লোহাগড়ায় আনতে দেই নাই।

পরবর্তীতে আমার স্বামী সাদীকে তার গ্রামের বাড়ি বাগেরহাটে দাফন করা হয়েছে,

কিন্ত এখন আমি স্বামী হারা বেদনায় এবং আমার মাসুম দুইটা মেয়ের বাবা হারিয়ে হত্যাকারীদের বিচারের দাবীতে আজ রাস্তায় এসে দাড়িয়েছি যাতে ন্যায্য বিচার পায়।

তিনি আরও বলেন আমি গত ১২-৭-২৩ তারিখে নড়াইল আদালতে সাদী হত্যার ঘটনায় অভিযোগ দায়ের করলে বিজ্ঞ আদালত পিবিআই যশোরকে তদন্তের দায়িত্ব প্রদান করেন।

মাননীয় প্রধানমন্ত্রী এবং মহামান্য আদালতের কাছে আমার দাবী সঠিক তদন্ত করে আমার স্বামীকে যারা নির্যাতন করে হত্যা করেছে তাদের আইনের আওতায় এনে ফাঁসি দেওয়া হোক।

এ সময় মানববন্ধনে আরো বক্তব্য রাখেন মৃত সাদীর ভাই মোঃ বাকি বিল্লাহ,সাদীর কন্যা খাদিজা খানম, খাদিজা তার বক্তব্যে তার বাবার হত্যাকারী বোরহান উদ্দিন সহ সকল খুনিদের ফাঁসির দাবি জানান,

এসময় বিচারের দাবিতে আরও বক্তব্য রাখেন পাচুড়িয়া গ্রামের মাসুদ লস্কার প্রমুখ।

উক্ত মানববন্ধন শেষে লোহাগড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সহ বিভিন্ন দপ্তরে শেখ সাদী হত্যার সাথে জড়িত প্রধান আসামি সৈয়দ বোরহান উদ্দিন সহ অন্য আসামীদের শাস্তির দাবিতে লিখিত আবেদন পাঠান শেখ সাদীর স্ত্রী সাহিদা বেগম।

 

দয়া করে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..