সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২:৩৫ অপরাহ্ন
শিরোনামঃ
গোপালগঞ্জে সাংবাদিক পুত্র হত্যার প্রতিবাদে ও বিচারের দাবীতে মানববন্ধন নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় লোহাগড়ায় বাড়ি-ঘর ভাঙচুর, লুটপাট গুরুতর আহত দু’জনকে ঢাকায় প্রেরণ বাগেরহাটের রামপালে পুলিশের পৃথক অভিযানে দুই মাদক কারবারি আটক ফটিকছড়ি সাংবাদিকদের সংগঠন রিপোটার্স ইউনিটির সভা অনুষ্ঠিত। রামপালে পিক-আপের ধাক্কায় চতুর্থ শ্রেণির শিক্ষার্থী নিহত লোহাগড়া বাজারে দুটি মোবাইলের দোকানে দুর্ধর্ষ চুরি, মোবাইলসহ অর্ধকোটি টাকার মালামাল চুরি  আনার হত্যার ঘটনায় গ্রেপ্তার তিন আসামির আট দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত এম পি আনারের দেহাংশ উদ্ধারে কসাই জিহাদকে রিমান্ডের আবেদন  মোংলা থানার ওসির অপসারনের দাবীতে বাগেরহাটে মানববন্ধন চবি ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের ২৩ তম সভাপতির দায়িত্বে জনাব মুহিউদ্দিন আহমদ।

গাজীপুরে সরকারি স্কুলের ভর্তি লটারিতে এক শিক্ষার্থীর নাম ৫ বার!

চঞ্চল মিয়া বিশেষ প্রতিনিধিঃ
  • আপলোডের সময় : মঙ্গলবার, ১৩ ডিসেম্বর, ২০২২

গাজীপুরের জেলা প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রাণী বিলাসমণি সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণীতে ভর্তির লটারিতে এক শিক্ষার্থীর নাম পাঁচবার ওঠার অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার (১২ ডিসেম্বর) কেন্দ্রীয় ভাবে অনুষ্ঠিত সরকারি ওই স্কুলে নতুন বছরে ভর্তির জন্য লটারির মাধ্যমে ফলাফল নির্ধারণ করা হয়। পরদিন মঙ্গলবার (১৩ ডিসেম্বর) প্রভাতী শাখা ও দিবা শাখায় ১৭৪ জন করে ছাত্রের মেধা তালিকা টানানো হলে এই ত্রুটি অভিভাবকদের নজরে আসে। বিষয়টি অভিভাবকদের নজরে আসার পর বিষটি নিয়ে সমালোচনার ঝড় উঠেছে।

অত্র স্কুলের দিবা ও প্রভাতী শাখার প্রধান শিক্ষক এবং জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি হিসেবে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো: মামুনুল কবিরের স্বাক্ষরিত দুটি শাখার ফলাফলে দেখা গেছে, আব্দুল্লাহ সাইমুম এহসান নামে এক শিক্ষার্থীর নামই আছে পাঁচবার এবং আজিজ রায়হান তাসিন নামে আরেক শিক্ষার্থীর নাম আছে দুইবার।

এ বিষয়ে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মামুনুল কবির জানান, স্কুলের ভর্তি কমিটির সদস্য সচিব, স্কুলের প্রধান শিক্ষকের মাধ্যমে তালিকাটি পেয়ে জেলা প্রশাসকের প্রতিনিধি হিসেবে তিনি তাতে স্বাক্ষর করেন। সফটওয়্যার বা কারিগরি ত্রুটির কারণে এমনটা হয়ে থাকলে সে বিষয়ে পরবর্তীতে মিটিং এর মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জনান তিনি।

শিক্ষার্থীর ভবিষ্যৎ নির্ধারণকারী এ ফলাফলে এত বড় ত্রুটির জন্য অভিভাবকের মধ্যে ক্ষোভ বিরাজ করেছে। লটারি মাধ্যমে সন্তানদের শিক্ষার ভাগ্য নির্ধাণের জন্য একদিকে অভিভাবকরা শিক্ষার মান নিয়ে যেমন চিন্তিত অন্যদিকে এমন গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে কারিগরি ক্রটি হওয়ায় আরও উদ্বিগ্ন। এছাড়াও দেশের বেশ কয়েকটি জেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের লটারিতে একই শিক্ষার্থীর নাম একাধিক আসার অভিযোগ রয়েছে। বিষয়টির সুষ্ঠ তদন্তের দাবি জানিয়েছেন সংশ্লিষ্ট সবাই।

দয়া করে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..