বুধবার, ২২ মে ২০২৪, ০৬:০০ পূর্বাহ্ন
শিরোনামঃ
নড়াইল সদরে দ্বিমুখী ও লোহাগড়া উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে লড়াই হবে ত্রিমুখী বাগেরহাটে মোরেলগঞ্জে জীবনের ঝুৃঁকি নিয়ে ভাঙা কাঠের পুল দিয়ে পার হচ্ছে সাধারণ মানুষ। চা শ্রমিক দিবস,মুল্লুকে চলো আন্দোলনের ১০৩ বছর। নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘনের অভিযোগ ভিত্তিহীন – মাশরাফী কুকুরের দল তাকে একা পেয়ে কামড়ে ছিন্নভিন্ন করে ফেলে বাগেরহাটের শরণখোলায় গলায় ওড়না পেঁচিয়ে প্রবাসীর স্ত্রীরির আত্মহত্যা সিংড়ায় ভোক্তা-অধিকারের অভিযানে তিন প্রতিষ্ঠান কে জরিমানা  সাতক্ষীরার তালায় ট্রাক উল্টে ২ শ্রমিক নিহত আহত ১১   বাগেরহাটের রামপালে লায়ন ড.শেখ ফরিদুল ইসলামের উদ্যোগে চোখের ছানি অপারেশন ও লেন্স সংযোজন ৫০০ রোগী বাছাই লোহাগড়ায় চেয়ারম্যান প্রার্থী কে এম ফয়জুল হক রোমের নির্বাচনী অফিস ভাংচুর ও পোষ্টার ছিঁড়ে ফেলার অভিযোগ 

পদ্মা সেতু জুনেই চালু হবে,চলবে যানবাহন আলোকসজ্জার কাজও এগিয়ে চলছে।

সংগ্রাম প্রতিদিন ডেস্ক ঃ
  • আপলোডের সময় : বৃহস্পতিবার, ২৪ মার্চ, ২০২২

পদ্মা সেতু জুনেই চালু হবে। সেতু খুলে দিতে কাজ শেষ পর্যায়ে রয়েছে। তবে এ সময় কেবল গাড়ি চলবে। রেল চলাচল শুরু হতে আরও সময় লাগবে।

সেতুর স্টিলের স্প্যানের ওপর দিয়ে চলবে যানবাহন। স্প্যানের ভেতর দিয়ে চলবে ট্রেন। মাঝখানে রয়েছে বিভাজক।

বর্তমানে পদ্মা সেতুতে চলছে পিচ ঢালাই আর বাতির খুঁটি বসানোর কাজ। উদ্বোধনের জন্য রং আর আলোকসজ্জার কাজও এগিয়ে চলছে। যা ২৩ মের মধ্যে শেষ হবে।

পদ্মা সেতু প্রকল্পের পরিচালক মো. শফিকুল ইসলাম বলেন, কোন তারিখে পদ্মা সেতু চালু হবে—এটা সরকারের নীতিনির্ধারকেরা ঠিক করবেন। তবে জুনের মধ্যে কাজ শেষ করার টার্গেট রয়েছে। সেই টার্গেটে সব কিছু এগোচ্ছে। আশা করি জুনেই সেতু চালু হবে।জটিল কোনো কাজ এখন নেই। যা আছে সবই মসৃণ আর সাজসজ্জার কাজ।

ঠিকাদার সূত্রে জানা গেছে, সেতুর সাজসজ্জার কাজ ২৩ মের মধ্যে শেষ করার লক্ষ্য নিয়ে কাজ করা হচ্ছে।

পদ্মা সেতু রেল সংযোগ প্রকল্প সূত্র জানায়, রেলপথ বসাতে সময় লাগবে আগামী বছরের জুন পর্যন্ত। সড়কপথটি ঘণ্টায় ৮০ কিলোমিটার গতিতে যান চলাচলের উপযোগী করে তৈরি করা হলেও রেলপথ স্থাপনের কাজ চলাকালে ঝুঁকি এড়াতে যানবাহনের সর্বোচ্চ গতি রাখা হতে পারে ঘণ্টায় ৩০ কিলোমিটার।

দেশের দীর্ঘতম পদ্মা সেতু তৈরি করছে বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ। অন্যদিকে ঢাকা থেকে পদ্মা সেতু হয়ে যশোর পর্যন্ত পৃথক প্রকল্পে নতুন ১৬৯ কিলোমিটার ব্রড গেজ রেলপথ তৈরি করছে বাংলাদেশ রেলওয়ে। শুরুতে পরিকল্পনা ছিল, পদ্মা সেতুতে যেদিন থেকে যানবাহন চলাচল শুরু হবে সেদিন থেকেই ট্রেন চালানোর। তবে রেল সংযোগ কাজের ধীরগতির কারণে এ পরিকল্পনা থেকে সরে আসে সরকার।

রেলপথটির একটি অংশ (ঢাকা-ভাঙ্গা) চালুর লক্ষ্য ধরা হয়েছে চলতি বছরের ডিসেম্বরে। আর পুরো রেলপথটি চালু হবে ২০২৪ সালের জুনের মধ্যে।

দয়া করে শেয়ার করুন

এই ক্যাটাগরীর আরো খবর..